ইউনুস ও আযহার চমৎকার ব্যাটিং

0

  ইউনুস খান ও আজহার আলীর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তৃতীয় টেস্টে সিরিজের ব্যাটে লড়াই করছে। সিডনি ক্রিকেট গাউন্ডে টস জিতে আগে ব্যাটে গিয়ে তিন সেঞ্চুরিতে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া ৮ উইকেটে ৫৩৮ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে। জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসের শুরুতেই বিপদে পড়ে পাকিস্তান। দলীয় ৬ রানের মাথায় দাঁড়িয়ে ফেরেন শারজিল খান (৪) ও বাবর আজম (০)। দলীয় চতুর্থ ও ব্যক্তিগত দ্বিতীয় ওভারের প্রথম ও পঞ্চম বলে এই দুই ব্যাটসম্যানকে ফেরার অজি পেসার জশ হ্যাজেলউড। শুরুতেই জোড়া আঘাত খেয়ে ফের অল্প রানে গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কায় তখন সফরকারী পাকিস্তান।

তবে এরপর তাদেরকে লড়াইয়ে ফেরান ইউনুস খান ও আজহার আলী। তৃতীয় উইকেটে ১২০ রান যোগ করে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে তারা। আজহার আলী ১২৩ বলে ৫৮ ও ইউনুস খান ১১২ বলে ৬৪ রানে অপরাজিত। ৮ উইকেট হাতে নিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষে পকিস্তান ৪১২ রানে পিছিয়ে। আজহার আলী এখন রয়েছেন নতুন এক রেকর্ডের সামনে। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে এক সিরিজে পাকিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৯০ রানের রেকর্ড মোহসিন খানের। ১৯৮৩ সালে তিনি এই রেকর্ড গড়েন। সেবার তিনি ওই সফরে খেলেন ৯ ইনিংস। তবে আজহার

আলী চলতি সিরিজের পাঁচ ইনিংসেই করে ফেলেছেন ৩৮২ রান। মোহসিন খানের চেয়ে ৮ রান পিছিয়ে অপরাজিত আজহার আলী।
এর আগে আজ ব্যাটিং শক্তি দেখায় অস্ট্রেলিয়া। ৩ উইকেটে ৩৬৫ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনে ব্যাটে নামে তারা। ম্যাট রেনশ’ ১৬৭ ও পিটার হ্যান্ডসকম্ব ৪০ রানে অপরাজিত ছিলেন। চতুর্থ উইকেটে তারা ১৪২ রানে যোগ করে রেনশ’ ফেরেন ১৮৪ রানে। আর হ্যান্ডসকম্ব করেন ১১০ রান।

অভিষেক থেকে টানা চার টেস্টে কমপক্ষে ফিফটি করলেন তিনি। এর আগে এমন কীর্তি অস্ট্রেলিয়ার শুধু হার্বি কলিন্সের ছিল।হ্যান্ডসকম্ব ৪ টেস্টের ৬ ইনিংসে দুই সেঞ্চুরি ও দুই ফিফটি করেছেন। দুই ইনিংসে কমপক্ষে ফিফটি করতে পারেননি তিনি। কিন্তু ওই দুইবার ১ ও ৩৫ রানে অপরাজিত ছিলেন। চার টেস্টে ৩৫৯ রানে তার ব্যাটিং গড় এখন ৮৯.৭৫।

Info : mzamin.com

Share.

About Author

Leave A Reply