প্রকাশিত হলো অস্থায়ী রাষ্ট্রপতিকে নিয়ে ইতিহাসের প্রামাণ্য দলিলগ্রন্থ ‘সংবাদপত্রে সৈয়দ নজরুল ইসলাম’

0

মাই ২৪ বিডি ডেস্কঃ

মঙ্গলবার ১২ জানুয়ারি ২০২১ প্রকাশিত হলো স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি, জাতীয় চার নেতার অন্যতম ও বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর সৈয়দ নজরুল ইসলামকে নিয়ে ইতিহাসের প্রামাণ্য দলিলগ্রন্থ ‘সংবাদপত্রে সৈয়দ নজরুল ইসলাম’। বইটি সংকলন ও সম্পাদনা করেছেন ত্রৈমাসিক ‘এবং বই’-এর সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ। ইতিপূর্বে সৈয়দ নজরুল ইসলামকে নিয়ে বাংলাদেশে প্রথম ও পূর্ণাঙ্গ জীবনী রচনা করেন ফয়সাল আহমেদ। ‘সৈয়দ নজরুল ইসলাম : মহাজীবনের প্রতিকৃতি’ বইটির জন্য লেখক ২০১৯ সালে প্রবন্ধ, গবেষণা ও নাটক বিভাগে ‘কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার’ অর্জন করেন। বর্তমান বইটি নিয়ে লেখক বলেন, ‘বইটি পাঠের মধ্যদিয়ে অন্য এক সৈয়দ নজরুলকে জানার সুযোগ তৈরি হবে। পাওয়া যাবে ইতিহাসের এক সফল নায়কের সন্ধান। আত্মত্যাগের মাধ্যমে তিনি কীভাবে নেতা হয়ে উঠেছেন, সংবাদপত্রে ধারণ করা সেসময়কার চিত্রই ফুটে ওঠেছে এই বইতে। আগ্রহী পাঠক বইটি আন্তরিকভাবে গ্রহণ করলেই আমার সমস্ত প্রচেষ্টা সফল হয়েছে বলে মনে করবো।’

বইটিতে ১৯৬৪ সাল থেকে ১৯৭৫ পর্যন্ত বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের রাজনৈতিক জীবনের ধারাবাহিক উত্থান, কর্ম ও ভূমিকা প্রামাণ্যরূপে বিবৃত হয়েছে। বইটি উৎসর্গ করা হয়েছে সৈয়দ নজরুল ইসলামের সুযেগ্য পুত্র, আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রয়াত আশরাফুল ইসলামকে। সৈয়দ নজরুল ইসলাম সম্পর্কে মুক্তিযুদ্ধকালীন একটি পত্রিকার মূল্যায়ন এখানে উল্লেখ করা হলো: “স্বাধীন-বাংলাদেশ সরকারের অস্থায়ী কর্ণধার সৈয়দ নজরুল ইসলাম বাঙ্গালীদের কাছে একজন সঙ্কট-মানব হিসেবে পরিচিত। বস্তুতঃ আওয়ামী লীগ ও বাঙ্গালী যখনই কোন সঙ্কটে পতিত হয়েছে তখনই তাঁর উপর অর্পিত হয়েছে পথ প্রদর্শনের দায়িত্ব। সহজ-সরল নীতিনিষ্ঠ এই মানুষটি কথার চেয়ে কাজ করেন বেশি, চিন্তা করেন আরও বেশি।…” (জয় বাংলা, মুজিবনগর, প্রথম বর্ষ : চতুর্থ সংখ্যা, ২রা জুন ১৯৭১)

বইটিতে ১৯৬৪-১৯৭৫ সাল পর্যন্ত ঢাকা থেকে প্রকাশিত দৈনিক ইত্তেফাক, দৈনিক সংবাদ, দৈনিক বাংলা এবং মুক্তিযুদ্ধকালীন পত্রিকা-‘জয়বাংলা’ ও ‘বিপ্লবী বাংলাদেশ’ পত্রিকার সংবাদগুলো স্থান পেয়েছে। বইটি প্রকাশ করেছে দ্যু প্রকাশন। ‘সংবাদপত্রে সৈয়দ নজরুল ইসলাম’ সম্পর্কে প্রকাশক হাসান তারেক বলেন, ‘বইটি সৈয়দ নজরুল ইসলামকে নিবিড়ভাবে জানতে ও বুঝতে অসামান্য ভূমিকা রাখবে। স্বাধীনতা-পূর্ব সময়ে তাঁর রাজনৈতিক উত্থান, মুক্তিযুদ্ধ সংঘটনে নেতৃত্বপূর্ণ ভূমিকা, স্বাধীনতা-উত্তরকালে যুদ্ধের ধ্বংসস্তূপ থেকে দেশ পুনর্গঠনে নিরলস ভূমিকা এবং বঙ্গবন্ধুর প্রতি আমৃত্যু বিশ^স্ত থেকে প্রাণদান পর্যন্ত পত্রিকায় নিত্যদিনের খবরের সংকলন এই বইটি। বইটি আগামী দিনে সৈয়দ নজরুল ইসলামের ওপর আরো গভীর ও তাৎপর্যপূর্ণ গবেষণার উৎসমুখ হিসেবে গণ্য হবে।’

বইটি প্রকাশে চলমান মহামারিকালে কোনো আনুষ্ঠানিকতার আয়োজন করা হয়নি। সকলের সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখেই শুধুমাত্র সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বইটির প্রকাশ সম্পর্কে জানানো হয়। বইটি পাওয়া যাবে অনলাইন বুকশপ-রকমারি, বইমেলা, বইবাজারসহ সারাদেশের প্রতিষ্ঠিত বুকশপগুলোতে।

Share.

About Author

Leave A Reply