গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা

0

স্টাফ রিপোর্টারঃ
কিশোরগঞ্জের নিকলীতে পারিবারিক বিরোধের জেরে জেসমিন আক্তার নামে এক গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) সন্ধ্যায় নিকলী উপজেলার জারইতলা ইউনিয়নের কামালপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত জেসমিন উপজেলার উত্তর দামপাড়া সাহেবের হাটি গ্রামের মৃত শাহাবুদ্দিনের মেয়ে।

এ ঘটনায় নিহত জেসমিনের স্বামী জুয়েল মিয়াসহ ছয়জনকে আসামি করে একটি মামলা করেছেন তার মা। ইতোমধ্যে স্বামী জুয়েল মিয়া ও তার দুই ভাইয়ের স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বছরখানেক আগে জেসমিনের সঙ্গে জুয়েল মিয়ার বিয়ে হয়। পরে জুয়েল শ্বশুরবাড়ির একজনের কাছ থেকে ৩৯ হাজার টাকা ধার নেন। এ টাকা ফেরত দেয়াকে কেন্দ্র করে জেসমিনের সঙ্গে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির আত্মীয়দের সম্পর্কের অবনতি হয়। এ বিরোধকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার বিকেলে জেসমিনকে গলা কেটে হত্যার পর ঘরের আলমারির পেছনে মরদেহ ফেলে রেখে পালিয়ে যান জুয়েল ও তার স্বজনরা। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেলারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

নিকলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামসুল আলম সিদ্দিকী জানান, এ ঘটনায় নিহতের মা থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ইতোমধ্যে জেসমিনের স্বামী জুয়েল মিয়া, তার দুই ভাইয়ের স্ত্রী নূরজাহান ও খাদিজাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকীদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Share.

Leave A Reply