ট্রেনে কাটা পড়ে একই পরিবারের তিন ভাই বোনসহ চারজন নিহত

0

নিউজ ডেস্কঃ
নীলফামারীতে ট্রেনে কাটা পড়ে তিন ভাই-বোনসহ চার জনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার সকাল ৮টার দিকে জেলা সদরের কুন্দপুকুর ইউনিয়নের মনসাপাড়া গ্রামের বউবাজার নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, সকালে বাড়ির পার্শ্বে রেললাইনের ওপর দাঁড়িয়ে ট্রাক্টর থেকে ইট নামানো দেখছিল রিকশাচালক রোজয়ান আলীর মেয়ে রিমা আক্তার (৭), রেশমা আক্তার (৪) ও ছেলে মমিনুর রহমান (৩)। এসময় চিলাহাটি থেকে খুলনাগামী রকেট মেইল ট্রেনটি নীলফামারী স্টেশন ছেড়ে সৈয়দপুর পৌঁছার পথে তাদের সামনে চলে আসে। কুঁয়াশার জন্য প্রথমে ট্রেনটি দেখতে না পারলেও কাছাকাছি আসার পর বিষয়টি দেখতে পেয়ে তাদের প্রতিবেশী যুবক শামীম হোসেন (২৬) উদ্ধারে এগিয়ে গেলে তিনিও কাটা পড়েন। ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়।

নিহতের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। স্বজন হারানোর শোকে প্রলাপ করছেন নিহতের পরিবারের সদস্যরা। মর্মান্তিক ঘটনায় ফুঁসে উঠেছে স্থানীয় মানুষ। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঐ পথ দিয়ে চিলাহাটি-খুলনাগামী রূপসা ট্রেনটি ঘটনাস্থলে আসলে আটকে ভাঙ্গচুর করে বিক্ষুব্ধরা। স্থানীয়দের দাবি, রেল ক্রসিং না থাকায় এবং ঝড়ে গেলো চার চারটি তাজা প্রাণ।

পরে নীলফামারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান হস্তক্ষেপে বেলা সোয়া ১১টায় আটক ট্রেনটি ছেড়ে যায় গন্তব্যে স্বাভাবিক হয় ট্রেন চলাচল। পুলিশ সুপার বলেন, ‘জিআরপি থানার পুলিশকে খবর দেওয়া হয়েছে। তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।

Share.

Leave A Reply